1. crander@stand.com : :
  2. newsiqbalcox@gmail.com : Somoy Bangla : Somoy Bangla
বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ০৩:৫৩ অপরাহ্ন

কক্সবাজার পরিবেশ অধিদপ্তর অফিসের ড্রাইভার রাজনকে বাঁচাতে মরিয়া তদন্ত কর্মকর্তা মুশাইব

ডেস্ক নিউজ
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৯ আগস্ট, ২০২৩
  • ১৭৯ ভিউ সময়

 

মোঃ সেলিম সরওয়ার চৌধুরী ঃ

কক্সবাজার পরিবেশ অধিদপ্তর এর ড্রাইভার রাজনের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগের বিষয়ে পরিবেশ অধিদপ্তর এর অতিঃ মহাপরিচালকের পত্রের আলোকে তদন্তে নেমেছে কক্সবাজার পরিবেশ অধিদপ্তর অফিস। কিন্তু তদন্ত কর্মকর্তা অত্র অফিসের পরিদর্শক মুশাইব ড্রাইভার রাজনের একান্ত মানুষ হওয়ায় ড্রাইভারকে বাঁচাতে বিভিন্ন ফন্দি ও আইনের ফাঁক খোঁজছে এমনটি জানান অভিযোগকারীরা।
জানা যায়, পরিবেশ অধিদপ্তর কক্সবাজার অফিসের ড্রাইভার রাজনের বিরুদ্ধে পাহাড় খেকো, বালি খেকো, অবৈধ ইটভাটা থেকে মাসোহারা আদায় করে গোপনে অফিসের তথ্য পাছার, বিভিন্ন পরিবেশ ধ্বংসকারীদের সাথে গোপন আঁতাত করার কারনে অভিযানের আগেই খবর পেয়ে যায় পাহাড়, বালি ও বন খেকোরা। আর এতে করেই প্রতিমাসে লাখ টাকার উর্ধে তার আয় এমনটি অভিযোগ করছেন স্থানীয় পরিবেশবাদী ও সংগঠকরা। এনিয়ে পরিবেশবাদী সংগঠন “কক্সবাজার পরিবেশ রক্ষা আন্দোলন সোসাইটি” গত বছর ড্রাইভার রাজনের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ করলেও দৃশ্যমান কোন পদক্ষেপ নেয়নি কক্সবাজার অফিসের ডিডি। কক্সবাজার পরিবেশ রক্ষা আন্দোলন সোসাইটি’র নেতারা এ নিয়ে ডিডি’র দিকে আঙ্গুল তুলে বলেন, রাজনের টাকার ভাগ ডিডিও পায়। তাই অভিযোগের কোন পদক্ষেপ নেয়নি। এদিকে ড্রাইভারের স্ত্রীর বিকাশেও টাকা জমা হতো পরিবেশ ধংসকারীদের এমন অভিযোগ গুলো নিয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রচার হলেও কর্তৃপক্ষ কোন পদক্ষেপ নেয়নি। এ নিয়ে পরবর্তীতে সেভ দ্যা এনভায়রনমেন্ট (সেব) নামক আর একটি পরিবেশবাদী সংগঠনের নির্বাহী পরিচালক স.ম.ইকবাল বাহার চৌধুরী পরিবেশ অধিদপ্তরের মহা পরিচালক বরাবরে একটি অভিযোগ দাখিল করলে অধিদপ্তরের অতিঃ মহাপরিচালক গত ১৮/০৭/২০২৩ ইং তারিখের ২২.০২.০০০০.০২.২৭.০১০.২২-১৯৬ স্মারক নং মুলে ড্রাইভার রাজনের বিরুদ্ধে অভিযোগের তদন্ত করে ১৫ কর্ম দিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য পঃ অঃ কক্সবাজার এর পরিচালক বরাবরে চিটি পাঠান। তারই প্রেক্ষিতে বিষয়টি তদন্ত করার জন্য উক্ত অফিসের পরিদর্শক মুশাইবকে দায়িত্ব দেন। কিন্তু জানা যায় এই পরিদর্শক মুশাইবের বিরুদ্ধে বিধি ভংগ করে ইটভাটার লাইসেন্স করে দেয়া সহ অবৈধ ইটভাটা থেকে মাসোহারা আদায়ে ড্রাইভার রাজনের সাথে যোগসাজশের অভিযোগ শুনা যায়। আর এখন সেই পার্টনার ড্রাইভার রাজনকে অভিযোগ থেকে রক্ষা করতে পরিদর্শক মুশাইব বিভিন্ন ফন্দি ও বিধি খোঁজছে এমন খবর পাওয়া গেছে। উল্লেখ্য যে ড্রাইভার রাজনের বিরুদ্ধে ইতিপূর্বের কর্মস্থলেও অনিয়ম করার কারনে একাধিক বিভাগীয় মামলার ফাঁদে ও পড়েছে বলে একটি সূত্রে জানা যায়। সেব এর নির্বাহী পরিচালক স,ম,ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন ড্রাইভার রাজনের বিরুদ্ধে আরও একটি অভিযোগ জেলা প্রশাসক কক্সবাজার বরাবরে দিলে, জেলা প্রশাসক বিষয়টি অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এর কাছে পাঠান। অভিযোগটিও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রটের হাতে আইনগত প্রক্রিয়াধীন আছে।
এ বিষয়ে জানতে পরিবেশ অধিদপ্তর কক্সবাজার এর পরিদর্শক ও তদন্ত কর্মকর্তা মুশাইব এর ব্যাক্তিগত মোবাইলে একাধিকবার চেষ্টা করেও সংযোগ না পাওয়ায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

শেয়ার করুন

আরো বিভন্ন নিউজ দেখুন
© All rights reserved © 2021 somoybanglatv.com
Theme Customization By Monsur Alam