1. newsiqbalcox@gmail.com : Somoy Bangla : Somoy Bangla
বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৬:৪২ অপরাহ্ন

ঈদগড় বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ৪ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি

ডেস্ক নিউজ
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১১ মে, ২০২৩
  • ১৮৬ ভিউ সময়

 

ইব্রাহিম খলিল, রামু:

কক্সবাজার জেলার রামু উপজেলার ১ নং ঈদগড় ইউনিয়নে এক ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হয়। ১০ মে বুধবার সকাল সাড়ে সাতটায় এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

ঈদগড় বাজারের চেক গেইটস্থ মোহাম্মদ আব্দুল হাই প্রকাশ মোঃ সওদাগরের রাইস মিলের তুষের লাকড়ির মিল থেকে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে ও মালামাল উদ্ধার তৎপরতায় ছুটে আসেন স্থানীয় শত শত জনসাধারণ। পরবর্তীতে খবর পেয়ে ঈদগড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মেম্বার বৃন্দ, রামু ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের লোকজন ঘটনা স্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণের কাজ করে।

এদিকে খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে পরিদর্শনে আসেন রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফাহমিদা মোস্তফা স্বর্ণা। রামু উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও রামু উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সোহেল সরওয়ার কাজল, রামু উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম মন্ডল।

অপরদিকে অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে, সৌদি আরব থেকে উমরা শেষে ঢাকা থেকে বিমানযোগে কক্সবাজার এসে সেখান থেকে সরাসরি ঈদগড় বাজারে ছুটে আসেন সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল।

ঈদগড় বাজারের এই ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে আটটি দোকান সম্পূর্ণরূপে ভস্মীভূত হয়। এতে প্রায় তিন থেকে চার কোটি টাকা ক্ষতি হয় বলে ধারণা করেন ঈদগড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফিরোজ আহমদ ভুট্টো। ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের সাথে কথা হলে তারাও তিন কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার কথা জানান।

কক্সবাজার সদর-রামু-ঈদগাঁও সংসদীয় আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল, ঘটনার দিন রাত সাড়ে আটটার দিকে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে এসে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের মাঝে নগদ এক লক্ষ টাকা প্রদান করে। একই সঙ্গে ঈদগড় ইউপি চেয়ারম্যান ফিরোজ আহমদ ভুট্টোকে প্রধান করে ত্রাণ তহবিল গঠন করেন সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল। যেখানে রামু উপজেলার ১১ ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধিদের সম্পৃক্ত করার কথা জানান। সেই সাথে সমাজের বিত্তশালীদেরও এই অনুদানে অংশগ্রহণ করার অনুরোধ করেন তিনি।

অন্যদিকে ঈদগড় বাজারের অগ্নিকাণ্ডের কথা শুনে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন, কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য ফরিদুল আলম, রামু উপজেলা পরিষদ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফসানা জেসমিন পপি, ভাইস চেয়ারম্যান সালাউদ্দিন, সাবেক মহিলা ভাই চেয়ারম্যান মুসরাত জাহান মুন্নি।

পরিদর্শন শেষে সকলেই বলেন, ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ পূর্ণাঙ্গ রূপে তদন্ত করে সকল ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের মাঝে ব্যবসা-বাণিজ্য পুনরায় করতে পারার লক্ষ্যে সাহায্য সহযোগিতা ও পাশে থাকার আশ্বাস প্রদান করেন তাঁরা।

অপরদিকে ১১ই মে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে পুড়ে যাওয়া অগ্নিকাণ্ড স্থল পরিদর্শনে আসেন কক্সবাজার পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি নজিবুল ইসলাম সহ অন্যান্যরা। এসময় ঈদগড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি হাজী নুরুল আলম, সাধারণ সম্পাদক কায়েসুল ইসলাম বাঙ্গালী, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আবুল কাশেম, সাংগঠনিক সম্পাদক শামসুজ্জোদা সোনা মিয়া সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

কক্সবাজার পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি নজিবুল ইসলাম ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের মাঝে নগদ অর্থ প্রধান করেন বলে জানা যায়।

সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল রাতে অগ্নিকাণ্ড স্থল পরিদর্শন শেষে এক পথ সভায় বক্তব্য রাখেন, সেখানে তিনি উল্লেখ করেন, ঈদগড় বাজারে যত্রতত্র খোলা আকাশে গ্যাস সিলিন্ডার রাখা হয়েছে। যা যে কোন ধরনের যে কোন সময় বড় বিপদ হতে পারে বলে জানান। একই সঙ্গে যত্রতত্র ভাবে পেট্রোল ও অকটেন বিক্রি না করার অনুরোধও করেন তিনি।পাশাপাশি সকল দোকানপাটে অগ্নি নির্বাপক রাখারও কথা বলেন এই সংসদ সদস্য।

অন্যদিকে প্রশ্ন উঠেছে, ঈদগড় বাজারের মূল পয়েন্ট সহ বাজারের আশেপাশে কয়েকটি রাইস মিলে তুষের লাকড়ির মিল থাকার কারণে বাজারে যে কোন মুহূর্তে আরো বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন স্থানীয় জনসাধারণ। তারা দ্রুত এগুলো সরিয়ে ফেলার দাবি জানান।

ঈদগড় বাজারে আগুনে পুড়ে যাওয়া ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা হলেন, মোঃ আব্দুল হাই প্রকাশ মোহাম্মদ সওদাগর, ইব্রাহিম খলিল হিরো, ফোরকান আহমেদ, বাদল কান্তি, সৈয়দ হোসেন প্রকাশ চৌধুরী, মোহাম্মদ শাহজাহান ও বোরহান উদ্দিন। উক্ত সাত ব্যক্তির দোকান হলো আটটি।

শেয়ার করুন

আরো বিভন্ন নিউজ দেখুন
© All rights reserved © 2021 somoybanglatv.com
Theme Customization By Monsur Alam