1. newsiqbalcox@gmail.com : Somoy Bangla : Somoy Bangla
শনিবার, ১০ জুন ২০২৩, ০৭:৫৭ অপরাহ্ন

বকেয়া বেতন চাইতে যাওয়ায় নারী শ্রমিককে লাঞ্ছিত, মিথ্যা মামলায় হয়রানি

ডেস্ক নিউজ
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ, ২০২৩
  • ৫৪ ভিউ সময়

 

সোহেল রানা, রাজশাহী ব্যুরোঃ

 

দৈনিক ভিত্তিক শ্রমিকগণকে দীর্ঘ ৯ মাস যাবত বেতন ভাতাদী কর্তৃপক্ষ পরিশোধ না করায় বেতন ভাতাদী আদায়ের দাবিতে কর্মবিরতি ও মানববন্ধন করেছেন বাংলাদেশ রেশম গবেষণা ও ইনস্টিটিউট, রাজশাহী’র শ্রমিকগণ। বৃহস্পতিবার (৩০ মার্চ) সকাল থেকে বাংলাদেশ রেশম গবেষণা ও ইনস্টিটিউট, রাজশাহী’র মূল ফটকে তারা তাদের এই কর্মসূচীটি করেন।

এসময় মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারী শ্রমিকেরা বলেন, দীর্ঘ নয় মাস যাবত আমাদের বেতন বন্ধ থাকায় অসহায়ত্ব মধ্য দিয়ে আমরা দিন পার করছি। কান্নাবিজড়িত কন্ঠে বলেন, আমাদের সন্তানদের স্কুলের বেতন দিতে পারছি না। তাদের ঠিক মতো তিন বেলা খাবার মুখে তুলে দিতে পারছি না। আমরা শুধু পানি খেয়ে ইফতার করছি।এমতাবস্থায় কর্তৃপক্ষের কাছে গেলে তারা বলে আমাদের বেতন যখন আসবে তখন দিবে এবং শুধু ৩ মাসের বেতন দিবেন বলে জানান। ৯ মাসের বেতন বাদ দিয়ে শুধু ৩ মাসের বেতন দেওয়া হবে কেনো জিজ্ঞেস করলে কথা-কাটাকাটি সহ আমাদের ধাক্কা দিয়ে বের করে দেওয়া হয় এবং এক নারী শ্রমিককে স্পর্শ কাতর জায়গায় ধাক্কা দিয়ে লাঞ্চিত করে বের করে দেওয়া হয়। এই বিষয় নিয়ে কতৃপক্ষ আমাদের ৬ জন শ্রমিককে মিথ্যা মামলা দেয় এবং ১০ জন শ্রমিককে চাকরি থেকে অব্যাহতি দেয়। শুধু তাই নয় আমাদের মজুরির হার ৬৫০ টাকা কেটে ৫৫০ টাকা করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

মানববন্ধনে শ্রমিকগণ বলেন যেখানে প্রধানমন্ত্রী সব ক্ষেত্রে শ্রমিকদের অধিকার আদায়ের জন্য সব সময় এগিয়ে যেতে বলেছেন সেখানে আমাদের কেনো বেতন বন্ধ রেখেছেন কতৃপক্ষ। আমরা আমাদের সন্তানদের স্কুলের বেতন দিতে পারছি না, তাদের চাহিদা মতো খাওয়াতে পারছি না, এসময় শ্রমিকগণ ১৫৭ জনের ৯ মাসের বেতন আদায় সহ মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।নয়লে তারা তাদের এই কর্মবিরতি অব্যাহত রাখবেন।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ রেশম গবেষণা ও ইনস্টিটিউট, রাজশাহী’র গবেষণার দায়িত্বে থাকা এমদাদুল বারী ‘র সাথে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো বিভন্ন নিউজ দেখুন
© All rights reserved © 2021 somoybanglatv.com
Theme Customization By Monsur Alam