1. crander@stand.com : :
  2. newsiqbalcox@gmail.com : Somoy Bangla : Somoy Bangla
বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ০৩:১৯ অপরাহ্ন

রাসিকের চুরি যাওয়া বৈদ্যুতিক তারসহ চোর চক্রের দুই সদস্য গ্রেপ্তার

ডেস্ক নিউজ
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৭ মার্চ, ২০২৩
  • ৩৩৩ ভিউ সময়

 

সোহেল রানা রাজশাহী,বিভাগীয় ব্যুরো :

 

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের (রাসিক) ৩ লাখ ২০ হাজার টাকার বৈদ্যুতিক তারসহ চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে নগরীর শাহমখদুম থানা পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে পৃথক দুটি স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, নগরীর কাশিয়াডাংগা থানার হড়গ্রাম নগরপাড়া এলাকার সাজ্জাদ আলীর ছেলে মনিরুল ইসলাম মনি (২৭) ও চন্দ্রিমা থানাধীন আসাম কলোনী খয়লান এলাকার জলিল হাওলাদারের ছেলে মনজুরুল ইসলাম।

এর আগে গত ১০ ফেব্রয়ারী দক্ষিণ নওদাপাড়া সিটি হাট মোড় থেকে জেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয় পর্যন্ত দৃষ্টিনন্দন সড়ক বাতির ১৪টি পোলের ১২৬০ মিটার বৈদ্যুতিক তার চুরি করে নিয়ে যায় তারা। যার মুল্য ১১ লাখ টাকা। এর একদিন পর রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের সড়ক বাতিটি উদ্বোধন করার কথা ছিলো।

এরপর গত ১৯ ফেব্রয়ারী নওদাপাড়া বাস টার্মিনাল থেকে ভদ্রা রেল ক্রসিং পর্যন্ত সড়ক বাতির ৪টি পোলের মোট ৩৫০ মিটার তার চুরি হয়। যার মুল্য ৩ লাখ টাকা।

এ ঘটনায় গত ২১ ফেব্রয়ারী রাসিকের বৈদ্যুতিক শাখার উপ-সহকারি প্রকৌশলী তানভির হাসান সজিব বাদি হয়ে শাহমখদুম থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে নগরীর শাহমখদুম থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মেহদেী হাসান বলেন, রাসিকের বৈদ্যুতিক তার চুরির ঘটনায় চক্রের দুইজন চোরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মামলার ১ নম্বর আসামি মনিরুল ইসলাম মনির দেয়া তথ্যে সিটি হাট এলাকার গমের ক্ষেতের ভিতর একটি প্লাস্টিকের বস্তায় ৪৮ মিটার তার উদ্ধার করা হয়। যার মুল্য ৭০ হাজার টাকা।

বৃহস্পতিবার দিবাগত ভোর রাত ৩টার দিকে চন্দ্রিমা থানার আসাম কলোনী খয়লান এলাকায় অভিযান চালিয়ে মনজুরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং তার বসত বাড়ির গোডাউন থেকে দুটি বস্তায় রাসিকের দৃস্টিনন্দন বাতির আর্থিং তার উদ্ধার হয়। যার মুল্য ২,৫০,০০০ টাকা।

তিনি আরও বলেন, বাকি বৈদ্যুতিক তার ও চক্রের অন্যান্য সদস্যদের গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

শেয়ার করুন

আরো বিভন্ন নিউজ দেখুন
© All rights reserved © 2021 somoybanglatv.com
Theme Customization By Monsur Alam