চকরিয়া বদরখালীতে মানবাধিকার কর্মী রাসেলের অর্থায়নে রাস্তা সংস্কার

রিপোটার পরিচিতি :
  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৫ জুলাই, ২০২০

আলা উদ্দিন আলোঃ
জেলার সর্ববৃহত উপকূলীয় বানিজ্যেকন্দ্র চকরিয়া উপজেলার বদরাখালী বাজার।চকরিয়া, পেকুয়া, কুতুবদিয়া ও মহেশখালীর লক্ষ লক্ষ মানুষ প্রতিদিন উক্ত বাজারে নিত্যপণ্য বিকিকিনি করে। উক্ত বাজারের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক বাজারের পুর্বপাশে আব্দুল হান্নান মিয়া সড়কের বাজার অংশে কেবি জালাল উদ্দিন সড়ক হতে পশ্চিম দিকে বদরখালী কলোনিজেশন উচ্চ বিদ্যালয় হয়ে বাজার পর্যন্ত সড়কটি দীর্ঘদিন ধরে সংস্কারের অভাবে জনচলাচল অযোগ্য হয়ে পড়ে। প্রতিনিয়ত টমটম সহ বিভিন্ন যান দুর্ঘটনায় অনেকে চিরতরে পঙ্গুত্ববরণ করলে ও সড়কটি সংস্কারে কেউ উদ্যোগ নেয়নি। অথচ সড়কটিতে স্কুল কলেজ মাদ্রাসার হাজার হাজার ছাত্র ছাত্রী সহ প্রতিদিন লক্ষাধিক মানুষের চলাচলের একমাত্র পথ। এশিয়ার সর্ববৃহত সমিতি কিংবা বদরখালী ইউনিয়ন পরিষদের ও সড়কটি একমাত্র যোগাযোগের মাধ্যম হলেও সমিতি বা পরিষদ কেউ সড়কটির দিকে অদৃশ্য কারনে নজর দেয়নি। এই অতিব গুরুত্বপূর্ণ সড়কটির সংস্কারে কেউ হাত না দেওয়ায় যখন চলাচল অযোগ্য হয়ে পড়ে তখনই এগিয়ে আসে বদরখালী ৩ নং ওয়ার্ডের তরুন সমাজ সেবক জাতীয় পরিবেশ মানবাধিকার সোসাইটির মাতামুহুরী থানা সভাপতি মোহাম্মদ উল্লাহ রাসেল। গত ২৪ জুলাই নিজস্ব অর্থায়নে রাস্তাটি সংস্কার কর চলাচল উপযোগী করে দেন। বর্তমানে সড়কটিতে যান ও মানুষ চলাচলে চরম দুর্ভোগ লাঘব হয়েছে। এ নিয়ে বদরখালীতে রাসেল বন্ধনা চলছে। যে কাজটি এশিয়ার বৃহৎ সমিতি পারেনি বা করেনি, যে কাজটি ইউনিয়ন পরিষদ করতে পারেনি, সেই কাজটি করে দেখিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন তরুন সমাজ সেবক রাসেল।
এবিষয়ে জানতে চাইলে জাতীয় পরিবেশ মানবাধিকার সোসাইটির মাতামুহুরী থানা সভাপতি ও বদরখালী ৩ নং ওয়ার্ডের তরুণ সমাজসেবক মোহাম্মদ উল্লাহ রাসেল বলেন, গত ২৩ জুলাই রাত ৯ টার দিকে বদরখালী হাই স্কুলের দক্ষিন পাশে একটি টমটম উল্টে গিয়ে ২ জন মহিলা গুরুত্বর আহত হয়। এ সময় আমি বাজার থেকে বাড়ী যাওয়ার সময় উক্ত দৃশ্য চোখে পড়লে দৌড়ে গিয়ে টমটম থেকে দু আহত মহিলাকে হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা করাই। তখনই সিদ্ধান্ত নিয়ে পরদিন সকালে ট্রাক দিয়ে ইটের কংকর ও বালি এনে সড়কটি যোগাযোগ উপযোগী করি। সবার উচিত যার যার অবস্থান থেকে মানব কল্যাণে কাজ করে যাওয়া। আমি সেই তাগিদে জনস্বর্থে কাজ করেছি। সামনেও করে যাব ইনশাল্লাহ।

এই সংবাদটি শেয়ার করার দায়িত্ব আপনার

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ সমূহ