একটি মহল ছেলেধরা গুজব ছড়িয়ে আতংক সৃষ্টি করছে-খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় : বুধবার, ২৪ জুলাই, ২০১৯

একটি মহল দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির জন্য ছেলেধরা গুজব ছড়িয়ে জনমনে আতংক সৃষ্টি করছে। এ পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে সাংবাদিকরা তাদের প্রচার মাধ্যমে বড় ধরনের ভূমিকা রাখতে পারে। আজ বুধবার সকালে জেলা পুলিশের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিং-এ এমন মন্তব্য করেন খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আহমার উজ্জামান।
তিনি বলেন, গ্রামে-গঞ্জে, স্কুল পর্যায়ে সচেতনতামূলক সভা ও মাইকিংসহ ব্যাপক সচেতনতামূলক প্রচারণা চালানো হচ্ছে। যার কারণে খাগড়াছড়িতে এখনো পর্যন্ত কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।কোথাও কোন অস্বাভাবিক কাউকে দেখলে পুলিশকে অবহিত করতে অনুরোধ জানান তিনি।
সভায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এমএম সালাহউদ্দিন ও খাগড়াছড়ি সদর সার্কেলের সহকারি পুলিশ সুপার রওনক আলম উপস্থিত ছিলেন।

এই সংবাদটি শেয়ার করার দায়িত্ব আপনার

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ সমূহ

কক্সবাজার বাজারঘাটায় উর্মি বিউটি পার্লারে অভিযান ২০ হাজার টাকা জরিমানা

মোহাম্মদ আবু তৈয়ব, কক্সবাজারঃ

কক্সবাজার কক্সবাজারে বাজারঘাটায় উর্মি বিউটি পার্লারে অভিযান ২০ হাজার টাকা জরিমানা কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে,৩০ সেপ্টেম্বর সোমবার কক্সবাজার শহরের বাজারঘাটা এলাকায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালিত হয়। উক্ত অভিযানকালে উর্মি বিউটি পার্লার নামে এক প্রতিষ্টানে প্রচুর নকল ও লেভেলবিহীন পণ্য পাওয়ায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৫ অনুযায়ী ২০০০০ (বিশ হাজার টাকা) জরিমানা করা হয় এবং তাদেরকে ভবিষ্যতে এ ধরনের কাজ থেকে বিরত থাকার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হয়। জেলা প্রশাসনের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে

কক্সবাজার বাজারঘাটায় উর্মি বিউটি পার্লারে অভিযান ২০ হাজার টাকা জরিমানা

কক্সবাজার সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের দু’ গ্রুপে সংঘর্ষে আহত অন্তত ৫

স্টাফ রিপোর্টারঃ

কক্সবাজার সরকারী কলেজে সম্মেলন ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত পাচঁ আহত হয়েছে। আহতরা হলেন, শিমুল, খালেক, ইফতি ও শফিক। আজ রবিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জেলার এক শীর্ষ নেতা জানিয়েছেন, সম্মেলন ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের মাঝে এইঘটনাটি ঘটে। আহতদের সরকারি হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। আহত শিমুল-ইফতি দুজনই কমার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ও সভাপতি গ্রুপের বলে জানা গেছে। দুজনের বাড়ি শহরের পিটি আই স্কুল এলাকায়। আহত অপর দুইজন খালেক ও শফিকের অবস্থা আশংকাজনক,দুজনই যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বলে জানা গেছে।

কক্সবাজার সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের দু’ গ্রুপে সংঘর্ষে আহত অন্তত ৫