পাকিস্তানকে হারিয়ে শেষটা ভালো করার প্রত্যয় মাশরাফির

স্পোর্টস ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : বুধবার, ৩ জুলাই, ২০১৯

বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলার স্বপ্নভঙ্গ হয়ে গেছে বাংলাদেশের। মঙ্গলবার বার্মিংহামে ভারতের বিপক্ষে ২৮ রানে হেরে টাইগার শিবিরে ভর করেছে কিছুটা হতাশা। সেই হতাশা কাটিয়ে সতীর্থদের উজ্জীবিত করতেই কিনা অধিনায়ক মাশরাফি বললেন, পাকিস্তানের বিপক্ষে গ্রুপপর্বের শেষ ম্যাচটি জিতে শেষটা ভালো করতে চান।

ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ হারার পর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে মাশরাফি বলেন, ‘ভালো চেষ্টা ছিল, তবে এ ম্যাচটি আমাদের জেতা দরকার ছিল। জুটিগুলোর কোনো একটি যদি ৮০-৯০ পার হতো, তবে ম্যাচের চিত্র অন্যরকম হতে পারত।

এই বিশ্বকাপেই সেঞ্চুরির পাশাপাশি চতুর্থ অর্ধশতক দেখা পাওয়া সাকিব আল হাসানের প্রশংসা করে অধিনায়ক বলেন, ‘সাকিব নিজের সেরা ফর্মটা ধরে রেখেছে। মুশফিকও ভালো ব্যাটিং করেছে। তবে রোহিত শর্মার ক্যাচ মিস করাটা ছিল হতাশার। কিন্তু এমনটি খেলারই অংশ।’

৫ জুলাই লর্ডসে পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ ম্যাচ বাংলাদেশের। এই ম্যাচে জয়ে প্রত্যয়ী অধিনায়ক বলেন, আমরা নিজেদের সেরাটাই দিয়েছি। সমর্থকরা আমাদের সঙ্গে ছিল। আশা করি শেষটি জয় দিয়ে রাঙাতে পারব।

সেমিফাইনালে যেতে ভারতের বিপক্ষে জয়ের বিকল্প ছিল না মাশরাফিদের সামনে। কিন্তু ৩১৫ রানের লক্ষ্যে যে ধরনের জুটির প্রয়োজন ছিল সেটি করতে পারেনি বাংলাদেশ। মাশরাফি ম্যাচের বিশ্লেষণ করতে গিয়ে বললেন, ‘আমরা যদি কোনো জুটি ৮০-৯০ রানে পরিণত করতে পারতাম, তা হলে ম্যাচটা অন্যরকম হতে পারত। আমাদের ভাগ্যের সহায়তাও দরকার ছিল।’

এই সংবাদটি শেয়ার করার দায়িত্ব আপনার

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ সমূহ

ইউপি ডিজিটাল সেন্টারে সহকারী কাম-কম্পিউটারদের ১১৯ পদ সংরক্ষণের নির্দেশ

ডেস্ক নিউজঃ

কক্সবাজারসহ ৪ টি জেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের ডিজিটাল সেন্টারে হিসাব সহকারী-কাম-কম্পিউটার অপারেটরদের ১১৯ টি পদ সংরক্ষনের নির্দেশ প্রদান করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে ইউপি ডিজিটাল সেন্টারে উদ্যোক্তা পদে কর্মরতদের রাজস্ব খাতে আত্তীকরণ না করে হিসাব সহকারী-কাম-কম্পিউটার পদে প্রকাশিত নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না এবং ডিজিটাল সেন্টারে উদ্যোক্তা পদে কর্মরতদের রাজস্ব খাতে আত্তীকরণের নির্দেশ কেন দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত। মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) ইউনিয়ন পরিষদে হিসাব সহকারী-কাম-কম্পিউটার অপারেটরদের পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে দায়ের করা পৃথক দুইটি রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি শেষে বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি মুহাম্মদ মাহমুদ হাসান তালুকদার সমন্বয়ের গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করে অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্লাহ মিয়া। তাকে সহযোগিতা করেন অ্যাডভোকেট মো. মনিরুল ইসলাম ও মো. সোহরাওয়ার্দী সাদ্দাম। অন্য দিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার। আদেশের পর আইনজীবী ছিদ্দিক উল্লাহ মিয়া বলেন, দীর্ঘ ৯ বছর ইউনিয়ন পরিষদের ডিজিটাল সেন্টারে কর্মরত আছেন রিট আবেদনকারীরা। অথচ তাদের রাজস্ব খাতে আত্তীকরণ না করে হিসাব সহকারী-কাম-কম্পিউটার পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। রিটের শুনানি শেষে আদালত এই ১১৯ টি হিসাব সহকারী-কাম-কম্পিউটার অপারেটর পদ ৬ (ছয়) মাসের জন্য সংরক্ষণ করার জন্য নির্দেশনা প্রদান করেছেন। ফলে ইউনিয়ন পরিষদে হিসাব সহকারী-কাম-কম্পিউটার অপারেটরদের এই ১১৯ টি পদের নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ থাকবে এবং পদ গুলো সংরক্ষিত থাকবে। রিট আবেদনকারিগণ হলেন কক্সবাজার জেলার-আহমেদ আনোয়ার, মুরশেদুল করিম, জিয়াউল হক বাপ্পি, এহসান, গিয়াস উদ্দিন টিটু, আনোয়ারুল কবির, আব্দুল হাকিম, মোঃ মহিউদ্দিন, রুপন নাথ, শাহেদা পারভিন, নারায়নগঞ্জ জেলার-ইউসুফ মিয়া, আল-মাহমুদ, সালমা আক্তার, সাতক্ষিরা জেলার- মগফুর রহমান, মিঠুন কুমার সাহা, দেবদাস সানা, মোঃ শাহিন আলম, আব্দুল রশিদ নান্টু, এস. এম. শহিদুল ইসলাম, সাইফুজ্জামান, ঝিনাইদহ জেলার- মজিবুল হক, মোঃ মাসুদুর রহমান, সঞ্জিত বিশ্বাস, রঞ্জিত কুমার বিশ্বাসসহ ১১৯ জন।তারা বিভিন্ন ইউপির ডিজিটাল সেন্টারে উদ্যোক্তা পদে কর্মরত আছেন।

ইউপি ডিজিটাল সেন্টারে সহকারী কাম-কম্পিউটারদের ১১৯ পদ সংরক্ষণের নির্দেশ